Skip to Content

সবার আগে অর্থ পরিশোধ করলো সিলেট সিক্সার্স

সবার আগে অর্থ পরিশোধ করলো সিলেট সিক্সার্স

Be First!

অনলাইন ডেস্ক::
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের আগের আসরগুলোতে দেশি-বিদেশি খেলোয়াড়দের পাওনা অর্থ নিয়ে অনেক কথা শুনতে হয়েছে ফ্রাঞ্চাইজিগুলোকে। যার কারণে এবার আসরের শুরুতেই বিপিএল কমিটি সকল ফ্রাঞ্চাইজিদের কিছু শর্ত সাপেক্ষে দল গঠনের অনুমিত দেয়। তার মধ্যে অন্যতম শর্ত ছিল খেলোয়াড়দের পাওনা পরিশোধে তারা বাধ্য থাকবে। এ শর্তটি পূরণ করতে গড়িমসি করায় এবারের আসর থেকে বাদ পড়ে যায় বরিশাল বুলস। পরবর্তীতে রাজি হলেও সময় শেষ হয়ে যাওয়ায় এবারের বিপিএলে দেখা যায়নি বরিশাল কে।

এবারের আসরে ইতোমধ্যে ছিটকে পড়েছে নতুন দল সিলেট সিক্সার্স। আর তারাই বিপিএলের দলগুলোর মধ্যে সবার আগে পঞ্চম আসরের পাওনা অর্থ পরিশোধ করেছে। হাসিমুখেই দলের দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের বিদায় দিয়েছে তারা। একদিন আগে সব ক্রিকেটারের হাতে পাওনা অর্থের চেক তুলে দেন সিলেট সিক্সার্সের সিইও ইয়াসির ওবায়েদ।



এ প্রসঙ্গে সিলেট সিক্সার্সের চেয়ারম্যান শাহেদ মুহিত বলেন, বিপিএলে নিজেদের প্রথম অংশগ্রহণ হলেও, স্বল্প সময়ের মধ্যে ভালো দল গড়ার চেষ্টা ছিল। মাঠে দলের পারফরমেন্সে আমরা খুশি। সিলেটের সমর্থকদের মতো আমাদেরও প্রত্যাশা ছিলো আরো ভালো করার। শেষ পর্যন্ত সেটি না হলেও, আমরা হতাশ নয়। নতুন মৌসুমে পূর্ণ উদ্যমে সেরা দল গড়ার চেষ্টা থাকবে আমাদের।

সিলেট সিক্সার্স পয়েন্ট টেবিলে শেষ পর্যন্ত পঞ্চমস্থান নিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করেছে। তবে দলটির শেষ চারে খেলার দারুণ সম্ভাবনা ছিলো। একেবারে কাছে গিয়ে কয়েকটি ম্যাচ হেরে যাওয়াতে সেটা আর হয়নি। মাঠে নাসির-উপুল থারাঙ্গা-আন্দ্রে ফ্লেচারদের পারফর্মেন্সে দারুন সন্তুষ্ট ফ্রাঞ্চাইজি কর্ণাধাররা।

সিলেট সিক্সার্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসির ওবায়েদ জানান, সবার আগে পাওনা পরিশোধ করে আমরা দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের একটা বার্তা দিতে চেয়েছি। সেটি হলো, সিলেট সিক্সার্স শতভাগ পেশাদারিত্বের মানসিকতা নিয়েই বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়েছে। যেখানে ক্রিকেটারদের স্বার্থকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

বিপিএলের নিয়ম অনুযায়ী, আসর শুরুর আগে ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিকের অর্ধেক পরিশোধ করতে হবে এবং আসর শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যে বাকি টাকা পরিশোধ করতে হবে। অথচ আসর শেষ হওয়ার আগেই সিলেট সিক্সার্স তাদের বকেয়া সম্পূর্ণ পরিশোধ করেছে।

বিপিএলের প্রথম দুই আসরে সিলেট দলের নাম ছিল সিলেট রয়্যালস। তৃতীয় আসরে বদলে যায় দলটির মালিকানা ও নাম। ২০১৫ সালের আসরে এই দলটির নাম রাখা হয় সিলেট সুপারস্টার্স। তবে গত বছর বিপিএলে সিলেটের নামে কোনো দল ছিল না। অবশেষে পঞ্চম আসরে নতুন মালিকানায় বিপিএলে অংশ নেয় সিলেট।

পরবর্তী পোস্ট পেতে লাইক, কমেন্ট, শেয়ার করে একটিভ থাকুন। নতুনরা পেজে লাইক দিয়ে জয়েন করুন।
Share
Previous
Next

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*